ইনসাইড বাংলাদেশ

মালয়েশিয়ার নতুন প্রধানমন্ত্রীকে শেখ হাসিনার অভিনন্দন

প্রকাশ: ০২:২৮ পিএম, ২৫ নভেম্বর, ২০২২


Thumbnail

মালয়েশিয়ার নতুন প্রধানমন্ত্রী আনোয়ার ইব্রাহিমকে অভিনন্দন জানিয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শুক্রবার (২৫ নভেম্বর) সকালে প্রধানমন্ত্রীর সহকারী প্রেস সচিব এ বি এম সারওয়ার-ই-আলম নিশ্চিত করেছেন এই তথ্য।

এর আগে বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) মালয়েশিয়ার দশম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে আনোয়ার ইব্রাহিম শপথ গ্রহণ করেন। ওইদিন বিকেলে রাজধানী কুয়ালামপুরে আস্তানা নেগারা রাজপ্রাসাদে রাজা আল সুলতান আব্দুল্লাহ শপথ বাক্য পাঠ করান তাকে।

পাকাতান হারাপান জোটের নেতা আনোয়ার ইব্রাহিম শপথ নেয়ার পরে টুইট বার্তায় জানান, দলের ইচ্ছা ও বিবেকের তাগিদে এই দায়িত্ব নিয়েছেন তিনি।

এর আগে গত ১৯ ফেব্রুয়ারি দেশটির ১৫তম সাধারণ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ হয়। পার্লামেন্টের ২২২ আসনের মধ্যে সরকার গঠনের জন্য বড় দুই জোট পাকাতান হারাপান ও পেরিকাতান ন্যাশনাল ১১২টি আসন পেতে ব্যর্থ হয়। এরপরই মালয়েশিয়ার রাজা আল-সুলতান আব্দুল্লাহ জানান, শিগগিরই পছন্দসই ও যোগ্য ব্যক্তিকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দেবেন তিনি। সরকার গঠনে রাজনতিক দলগুলোর কোন্দলে সমঝোতায় ব্যর্থ হওয়ায় হস্তক্ষেপ হয় এই এই ব্যাপারে। আর সেই ধারাবাহিকতায় রাজার হস্তক্ষেপে প্রধানমন্ত্রী পদে নিয়োগ দেয়া হলো আনোয়ার ইব্রাহিমকে।

মালয়েশিয়ার সংবিধান অনুযায়ী, সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জনকারী জোটের নেতা প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়ে থাকেন। কিন্তু কোনো জোট একক সংখ্যাগিরিষ্ঠতা না পাওয়ার কারণে সরকার গঠন ও প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনের ব্যাপারে হস্তক্ষেপ গ্রহণ করেন রাজা।


মন্তব্য করুন


ইনসাইড বাংলাদেশ

এএসপি পদমর্যাদার ৫০ কর্মকর্তার পদায়ন

প্রকাশ: ০৪:২৮ পিএম, ২৯ নভেম্বর, ২০২২


Thumbnail

বাংলাদেশ পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) পদমর্যাদার ৫০ জন কর্মকর্তাকে বিভিন্ন ইউনিটে পদায়ন করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) ইন্সপেক্টর জেনারেল অব পুলিশ বাংলাদেশ, চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুনের সই করা পৃথক দুই প্রজ্ঞাপনে এ পদায়ন করা হয়।

পদায়ন করা পুলিশ কর্মকর্তাদের তালিকা দেখতে ক্লিক  করুন




মন্তব্য করুন


ইনসাইড বাংলাদেশ

রসিক নির্বাচনে থাকছে নিরপেক্ষ পর্যবেক্ষক দল

প্রকাশ: ০১:০০ পিএম, ২৯ নভেম্বর, ২০২২


Thumbnail

আসন্ন রংপুর সিটি কর্পোরেশন (রসিক) নির্বাচন তদারকির জন্য দল নিরপেক্ষ বিশিষ্ট ব্যক্তিদের নিয়ে একটি ভিজিল্যান্স ও অবজারভেশন টিম গঠনের নির্দেশ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।নির্বাচনী পরিস্থিতি ও আচরণবিধি প্রতিপালন নিয়ে কাজ করার উদ্দেশে এ ই টিম কাজ করবে বলেও জানিয়েছে সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানটি।

ইসির নির্বাচন ব্যবস্থাপনা শাখার উপ-সচিব মো. আতিয়ার রহমান বলেন, ইতোমধ্যে রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আবদুল বাতেনকে এ সংক্রান্ত একটি নির্দেশনা পাঠানো হয়েছে।

নির্দেশনায় বলা হয়, নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হয় এবং ওই নিরপেক্ষতা যাতে জনগণের কাছে দৃশ্যমান হয় তা নিশ্চিত করতে রিটার্নিং অফিসারের নেতৃত্বে বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে ভিজিল্যান্স ও অবজারভেশন টিম গঠন করতে হবে। ওই টিমে বিচার বিভাগীয় ম্যাজিস্ট্রেটদেরও অন্তর্ভুক্ত করা যেতে পারে।

জেলা নির্বাচন অফিসার টিমের সদস্য সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন। টিমে বেসরকারি পর্যায়ের দল নিরপেক্ষ বিশিষ্ট ব্যক্তিদের অন্তর্ভুক্ত করতে হবে। নির্বাচনী এলাকার ব্যাপ্তি বিবেচনায় প্রয়োজনে একাধিক ভিজিল্যান্স ও অবজারভেশন টিম গঠন করতে হবে।

ভিজিল্যান্স ও অবজারভেশন টিমের কার্যাবলী :

১. সংশ্লিষ্ট সিটি কর্পোরেশন এলাকায় নির্বাচনী আচরণবিধি ভঙ্গ হচ্ছে কি না অথবা ভঙ্গ হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে কি না তা সরেজমিনে পরিদর্শন। 

২. নির্বাচনী প্রচারণা ও নির্বাচনী ব্যয় বাবদ নির্বাচন বিধিমালার ৪৯ বিধিতে নির্ধারিত সীমার অতিরিক্ত ব্যয় হচ্ছে কি না বা অন্যান্য বিধি-বিধান যথাযথভাবে প্রতিপালিত হচ্ছে কি না তা সরেজমিনে পরিদর্শন।

৩. আচরণ বিধিমালা ভঙ্গের কোনো বিষয় নজরে আসা মাত্রই বিধি অনুসারে ব্যবস্থা গ্রহণ; অন্যান্য নির্বাচনী বিধি-নিষেধ ভঙ্গের ক্ষেত্রে মামলা দায়েরের ব্যবস্থা গ্রহণ এবং উপযুক্ত ক্ষেত্রে ফৌজদারি আদালতেও অভিযোগ দায়ের করতে হবে।

৪. এছাড়াও স্থানীয় পরিস্থিতির ওপর তিনদিন পরপর পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন রিটার্নিং অফিসারের মাধ্যমে নির্বাচন কমিশনে প্রেরণ; টিমকে প্রয়োজনে উদ্ভূত সমস্যাবলি তাৎক্ষণিকভাবে নিরসনের পরামর্শ দিতে হবে। 

৫. প্রার্থী বা তার নির্বাচনী এজেন্ট বা তাদের পক্ষে অন্য কেউ আচরণ বিধিমালার কোনো বিধি ভঙ্গ করলে বা ভঙ্গ করার চেষ্টা করলে বা বিধিমালার কোনো বিধি বিশেষ করে নির্বাচনী ব্যয় সংক্রান্ত বিধি-বিধান যথাযথভাবে প্রতিপালন না করলে তাৎক্ষণিকভাবে নির্বাচন কমিশনকে লিখিতভাবে অবহিত করতে হবে। অন্যদিকে এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেটদের নেতৃত্বে গঠিত ভ্রাম্যমাণ আদালতকেও তাৎক্ষণিকভাবে বিষয়টি অবহিত করতে হবে।

রসিক ভোটে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষদিন আজ মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর), মনোনয়নপত্র বাছাই আগামী ১ ডিসেম্বর, রিটার্নিং কর্মকর্তার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল দায়ের ৪ ডিসেম্বর, আপিল নিষ্পত্তি ৭ ডিসেম্বর, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ৮ ডিসেম্বর, প্রতীক বরাদ্দ ৯ ডিসেম্বর এবং ভোটগ্রহণ ২৭ ডিসেম্বর। সকাল সাড়ে আটটা থেকে সাড়ে ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

২০১৭ সালের ২১ ডিসেম্বর এই সিটিতে সর্বশেষ নির্বাচন হয়েছিল। নির্বাচিত কর্পোরেশনের প্রথম সভা হয়েছিল ২০১৮ সালের ১৯ ফেব্রুয়ারি। সে মোতাবেক এ সিটির বর্তমান নির্বাচিতদের মেয়াদ শেষ হবে ২০২৩ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি।


রসিক   নির্বাচন   ইসি   পর্যবেক্ষক দল  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড বাংলাদেশ

১২ ঘণ্টা চেষ্টার পর গাজীপুরে টেক্সটাইল মিলের আগুন নিয়ন্ত্রণে

প্রকাশ: ১২:২৬ পিএম, ২৯ নভেম্বর, ২০২২


Thumbnail

ফায়ার সার্ভিসের পাঁচটি ইউনিটের ১২ ঘন্টা চেষ্টার পর অবশেষে গাজীপুরের সদর উপজেলার ভবানীপুর এলাকায় সামিম টেক্সটাইল মিলের তুলার গুদামে লাগা আগুন এখন নিয়ন্ত্রণে।

সোমবার (২৮ নভেম্বর) দিনগত রাত ১২টায় এ অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয় বলে জানিয়েছেন গাজীপুর ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক আব্দুল্লাহ আল আরেফীন।

তিনি বলেন, সোমবার দিনগত রাত ১২টার দিকে সদর উপজেলার ভবানীপুর এলাকার সাফারি পার্ক সড়কে শামীম টেক্সটাইল মিলের তুলার গুদামে আগুন লাগে। আগুন লাগার খবর পেয়ে শ্রীপুর ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করে। আগুনের মাত্রা বাড়তে থাকায় পরে জয়দেবপুর ফায়ার সার্ভিসের দুটি ও শ্রীপুর ফায়ার সার্ভিসের আরও একটি ইউনিটসহ মোট পাঁচটি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করে।

এ ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি বলে জানিয়েছেন ফায়ার সার্ভিসের এ কর্মকর্তা। 



মন্তব্য করুন


ইনসাইড বাংলাদেশ

পুলিশের ২৫ কর্মকর্তাকে বদলি

প্রকাশ: ১২:০২ পিএম, ২৯ নভেম্বর, ২০২২


Thumbnail

সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) পদমর্যাদার ২৫ কর্মকর্তাকে বদলি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে এ বদলি করা হয়।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, আগামী ৭ ডিসেম্বরের মধ্যে বর্তমান কর্মস্থলের দায়িত্বভার অর্পণ না করলে ৮ ডিসেম্বর থেকে অনাকাঙ্ক্ষিত অবমুক্ত হিসেবে গণ্য করা হবে৷

বদলিকৃত কর্মকর্তাদের তালিকা দেখতে ক্লিক করুন এখানে


বাংলাদেশ্ব পুলিশ   বদলি  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড বাংলাদেশ

বন্ধুর হবু স্ত্রীকে ধর্ষণ ও ভিডিও ধারণের অভিযোগে ৩ জন গ্রেপ্তার

প্রকাশ: ১১:১৬ এএম, ২৯ নভেম্বর, ২০২২


Thumbnail

বন্ধুর বাগদত্তাকে ধর্ষণ ও মোবাইল ফোনে ভিডিও ধারণের অভিযোগে বরিশালে তিন যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গত রোববার রাতে বরিশাল নগরীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

সোমবার দুপুরে বরিশাল মহানগর পুলিশের উপকমিশনার (উত্তর) জাকির হোসেন ভূঁইয়া বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, গ্রেপ্তারদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

গ্রেপ্তার তিন যুবক হলো- মাদ্রাসা শিক্ষক আবিদ হাসান ওরফে রাজু, বাবুগঞ্জের একটি মসজিদের ইমাম আবু সাইম হাওলাদার ও সরকারি ব্রজমোহান (বিএম) কলেজের ছাত্র হৃদয় ফকির। পুলিশ জানায়, তারা তিনজন আগে একটি বাসায় ভাড়া থাকত। সেই সূত্রে তারা ঘনিষ্ঠ এবং একই বাসায় মিলিত হয়ে অপরাধ করেছে।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, বরিশাল মহানগরের একটি এলাকার বাসিন্দা ও দাখিল পরীক্ষায় অংশ নেওয়া এক ছাত্রীর সঙ্গে স্থানীয় তরুণের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। পরে পারিবারিকভাবে বিয়ে ঠিক হয়। বিষয়টি তরুণের বন্ধু আবিদ, আবু সাইম এবং হৃদয় জানত। গত ২০ আগস্ট রাতে হৃদয় ছাত্রীকে ফোনে জানায়, তার হবু স্বামীর সঙ্গে অন্য মেয়ের সম্পর্ক আছে।

এ কথা ছাত্রী প্রথমে বিশ্বাস না করলেও আবিদ ও আবু সাইম একই কথা জানায়। পরে হৃদয় তাকে জানান, ২৭ আগস্ট হৃদয়ের ভাড়া বাসায় প্রেমিক তরুণ অন্য মেয়ে নিয়ে যাবে। হাতেনাতে ধরতে ছাত্রীকে সেখানে যেতে বলা হয়। কথামতো সে সকাল ১০টার দিকে সেখানে গেলে তিনজন তাকে আটকে রাখে। পরে তাকে ধর্ষণ করে মোবাইল ফোনে ভিডিও করে।

এতে ছাত্রী অসুস্থ হয়ে পড়লে ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেয় তিনজন। ওই হুমকি দিয়ে মেয়েটিকে বাসায় নিয়ে তারা আবারও ধর্ষণ করে। এক পর্যায়ে তার কাছে টাকা দাবি করে। মেয়েটি টাকা দিতে অস্বীকার করলে অভিযুক্তরা ভিডিওটি তার হবু স্বামীর বাবাকে দেখায়। এর পর বিষয়টি জানাজানি হলে, প্রেমিক তরুণের সহায়তায় গত রোববার থানায় অভিযোগ দেন ভুক্তভোগী তরুণী। এ প্রসঙ্গে

বিমানবন্দর থানার অফিসার ইনচার্জ ( ওসি) হেলাল উদ্দিন বলেন, ছাত্রীর অভিযোগ মামলা হিসেবে গ্রহণ করা হয়েছে। পরে রাতেই অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ধর্ষণ  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন