ইনসাইড গ্রাউন্ড

আবারো হাসপাতালে ভর্তি নাসিম শাহ

প্রকাশ: ০১:৪৭ পিএম, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২২


Thumbnail আবারো হাসপাতালে ভর্তি নাসিম শাহ

এশিয়া কাপে চোখ ধাধানো পার্ফরম করে নাসিম শাহ জয় করেছে সবার মন। বিশেষ করে আফগানিস্তানের বিপক্ষে হেরে যাওয়া ম্যাচে শেষ ওভারে পর পর দুইটি ছক্কা হাকিয়ে স্মরণীয় এক জয় উপহার দিয়েছিল দলকে। কিন্তু এশিয়া কাপে পায়ে ব্যাথা পায় এই বোলার। চোট বেশী না থাকায় এক ম্যাচ বিশ্রাম নিয়ে খেলেছিলেন ফাইনালে। যদিও ফাইনালে কাঙ্ক্ষিত জয়ের দেখা পায়নি পাকিস্তান। তাই দেশে ফিরে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি হিসেবে ইংল্যান্ডের সাথে টি-টুয়েন্টি সিরিজ খেলার আয়োজন করে পাকিস্তান। কিন্তু এই প্রস্তুতি চলাকালীন সময়ে আবারো নাসিম শাহ কে ভর্তি হতে হলো হাসপাতালে। স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম থেকে জানা যায় মূলত ভাইরাল ইনফেকশনের কারনেই তাকে হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়েছে।

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে আজ পঞ্চম ম্যাচে রাতে মুখোমুখি হবে পাকিস্তান। তবে এই ম্যাচে নাসিম শাহকে পাওয়া যাবে না বলে জানিয়েছেন দলের এক মুখপাত্র।

সেই মুখপাত্র জানিয়েছেন, তার স্বাস্থ্যের অবস্থা খারাপ হওয়ার কারনেই তাকে নিয়ে যাওয়া হয়েছে হাসপাতালে। তবে সেই অবস্থা থেকে উন্নতি হয়েছে তার, সিরিজের পরের দুই ম্যাচে তিনি খেলতে পারবেন কি না, সেটা নির্ভর করবে মেডিক্যাল রিপোর্টের ওপর।

এর আগের তিন ম্যাচে বিশ্রামে ছিলেন তিনি। আজকের ম্যাচে অসুস্থতার কারনে হাসপাতালে থাকায় বিধ্বংসী এই বোলারকে ছাড়াই খেলতে নামবে পাকিস্তান।  


নাসিম শাহ   পাকিস্তান ক্রিকেট  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড গ্রাউন্ড

মরক্কোর জয় উদাযাপন, বেলজিয়ামে দাঙ্গা

প্রকাশ: ০৮:৩৯ এএম, ২৮ নভেম্বর, ২০২২


Thumbnail

এবারের বিশ্বকাপে আরেক অঘটনের জন্ম দিয়ে গতকাল বেলজিয়ামকে ২-০ গোলে হারিয়েছে মরক্কো। বেলজিয়াম হেরে যাওয়ার মেনে নিতে না পেরে দেশটির রাজধানী ব্রাসেলসে দাঙ্গা শুরু হয়ে যায়। ক্ষুব্ধ দাঙ্গাকারিদের ছত্রভঙ্গ করতে জলকামান ব্যবহার করেছে পুলিশ। এছাড়া পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে কাঁদানো গ্যাস ছোঁড়া হয়েছে বলেও খবর পাওয়া গেছে। কিছু এলাকায় জরুরী অবস্থা জারি করে যাতায়াত বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

আল-জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, মরক্কোর কাছে হার মেনে নিতে না পেরে ক্ষুব্ধ জনগণ ব্রাসেলসে গাড়ি জ্বালিয়ে দেন। ইট ছুড়ে গাড়ি ভাঙচুর করেন। দেশটির পুলিশের মুখপাত্র ইলসে ভ্যান ডি কিরি বলেছেন, লাঠি হাতে নিয়ে অনেকেই রাস্তায় নেমে আসেন। এ সময় একজন সাংবাদিক আহত হয়েছেন।

ব্রাসেলসের মেয়র ফিলিপ ক্লোজ ব্রাসেলসের সিটি সেন্টার থেকে লোকজনকে দূরে থাকতে নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি বলেন, সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে কর্তৃপক্ষ কাজ করছে।

ক্লোজ আরও বলেন, ‘আজ দুপুরের ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই। পুলিশ ইতিমধ্যেই কঠোর ব্যবস্থা নিয়েছে। আমি ভক্তদের শহরের কেন্দ্রে না আসতে বলছি। পুলিশ সর্বজনীন শৃঙ্খলা রক্ষার জন্য যথাসাধ্য চেষ্টা করছে। দুর্বৃত্তদের গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছি।’

পুলিশ বলছে, পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তবে ওই এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। তবে দাঙ্গার ঘটনায় কতজনকে আটক করা হয়েছে তা এখনো জানা যায়নি। এ ঘটনার পর মেট্রো স্টেশন ও বিভিন্ন সড়ক বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

এদিকে নেদারল্যান্ডস, আমস্টারডাম ও হেগ শহরেও ফুটবল ঘিরে বিশৃঙ্খলার খবর পাওয়া গেছে।

বেলজিয়ামের হারে দেশটির ফুটবল ভক্তদের মধ্য সহিংসতা ছড়ালেও মরক্কোর পরিস্থিতি সম্পূর্ণ ভিন্ন। সেখানকার রাস্তায় লোকজন স্বতঃস্ফূর্তভাবে জয় উদ্‌যাপন করছে।


কাটার বিশ্বকাপ   দাঙ্গা   বেলজিয়াম   মরক্কো  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড গ্রাউন্ড

স্পেনের সাথে পয়েন্ট ভাগাভাগি করলো জার্মানি

প্রকাশ: ০৩:১১ এএম, ২৮ নভেম্বর, ২০২২


Thumbnail

ভিন্ন দুই সমীকরণ সামনে রেখে বিশ্বকাপের হাই ভোল্টেজ ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল স্পেন ও জার্মানি। 'ই' গ্রুপের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে জয় তুলে নিয়ে পরের রাউন্ড নিশ্চিতের হাতছানি ছিলো স্পেনের সামনে। আর ম্যাচটি বিশ্বকাপে টিকে থাকার লড়াইয়ে পরিণত হয়েছিল জার্মানির জন্য। আল বাইত স্টেডিয়ামে দুই দলের ম্যাচটি শেষ হয়েছে ১-১ গোলের সমতায়।

কিক অফের পর থেকে দুই দলের লড়াই শুরু হয় বলের দখল নিয়ে। আক্রমণাত্নক ফুটবল খেলে শুরু থেকেই চাপ সৃষ্টির চেষ্টা চালায়। ম্যাচের ৭ মিনিটেই এগিয়ে যেতে পারতো স্পেন। দানি ওলমোর নেয়া শট হাতে লাগিয়ে দেন নয়্যার। তার হাতে লাগার পর উপরের পোষ্টে লাগ বল। সেখানেই শেষ হয়নি পরে সাইয পোষ্টে লেগে বল বাইরে চলে গেলে সে যাত্রায় বেঁচে যায় জার্মানি।

১৪ মিনিটে সুযোগ পেয়েছিলো জার্মানিও। তবে অফসাইডে ছিলেন গোরেৎস্কা। ২২ মিনিটে জর্দি আলবার শট বাম পোষ্ট ঘেঁষে বাইরে চলে যায়। ২৫ মিনিটে উনাই সিমনের ভুল পাস থেকে বল পোন জিনাব্রি। তার শটটিও পোষ্টের খানিক বাইরে দিয়ে চলে গেলে এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ হারায় জার্মানি।

আক্রমণ-প্রতি আক্রমণে চলতে থাকে খেলা। ২৫ মিনিটে সুযোগ পায় জিনাব্রি। দুই মিনিট পর ভালো সম্ভাবনা তৈরি করেছিলো স্পেন। কাজে লাগাতে ব্যর্থ হন ফেরান তোরেস। ৩৬ মিনিটে আরো একটি সহজ সুযোগ নষ্ট করেন তোরেস। ডি-বক্সে ফাঁকা জায়গায় বল পেয়েও পোষ্টের উপর দিয়ে পাঠান।

৪০ মিনিটে কর্ণার থেকে হেডে গোল করে জার্মানিকে এগিয়ে দেন রুডিগার। তবে অফসাইডের ফাঁদে পড়ায় তা বাতিল ঘোষণা করেন ডাচ রেফারি ডেসমন্ড। লিড নিতে ব্যর্থ হয় জার্মানি।  নির্ধারিত সময়ে কোন গোল না হলে সমতায় শেষ হয় দুই দলের প্রথমার্ধ্ব।

দ্বিতীয়ার্ধেও গোলের আশায় মরিয়া হয়ে খেলতে থাকে দুই দল। তবে গোছানো আক্রমণ করতে পারছিলো কোন দলই। ম্যাচের ৫৪ মিনিটে ফেরান তোরেসকে উঠিয়ে আলভারো মোরাতাকে মাঠে নামান স্প্যানিশ কোচ এনরিকে। ৫৬ মিনিটে কিমিচের নেয়া শট কর্নারের বিনিময়ে রুখে দেন উনাই সিমোন।

৬২ মিনিটে স্পেনকে এগিয়ে দেন মোরাতা। বদলি হিসেবে নামার ৮ মিনিটের মধ্যে গোল করে স্প্যানিশদের স্বস্তি এনে দেন এই ফরোয়ার্ড। বাম পাশ থেকে জর্দি আলবার দারুণ এক পাস থেকে নয়্যারের মাথার উপর দিয়ে বল জালে জড়ান তিনি। চলতি বিশ্বকাপে এটি মোরাতার দ্বিতীয় গোল। ৬৫ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করার সুযোগ ছিলো অ্যাসেনসিও'র সামনে। তবে তার নেয়া শট চলে যায় পোষ্টের অনেক উপর দিয়ে চলে যায়। পরের মিনিটে একাদশে জোড়া পরিবর্তন আনে স্পেন। অ্যাসেনসিও-গাভির বদলি হিসেবে মাঠে নামেন কোকে এবং নিকো উইলিয়ামস। ৭০ মিনিটে দলে তিনটি পরবর্তন আনেন হান্সি ফ্লিক। এ ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপে নিজের প্রথম ম্যাচ খেলতে নামেন লেরয় সানে।

৭৩ মিনিটে গোলরক্ষককে একা পেয়েও গোল করতে পারেন নি জামাল মুসিয়ালা। পা দিয়ে ঠেকিয়ে দেন মুসিয়ালার শট। সমতায় ফেরার সুযোগ হারায় জার্মানি। ফিরতি বল পেয়ে সেটাও কাজে লাগাতে পারেনি জিনাব্রি। তবে ৮৩ মিনিটে জার্মানিকে স্বস্তি এনে দেন বিশ্বকাপে নিজের প্রথম ম্যাচ খেলতে নামা ফুলক্রুগ। মুসিয়ালার কাছ থেক বল পেয়ে বুরেট গতির শটে জালে জড়ান তিনি। সমতায় ফেরে চারবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। কয়েক মিনিট পর ব্যবধান বাড়ানোর সুযোগ পেয়েও তা নষ্ট করে জার্মানি। তবে অতিরিক্ত সময়ের শেষ মিনিটে বাম প্রান্ত থেকে লেরয় সানে পরিষ্কার সুযোগ পেলেও গোল লাইন থেক তা ক্লিয়ার করে দেন রদ্রি। এতে ১-১ গোলে ড্রয়ে নিয়ে মাঠ ছাড়ে দুই দল।

এর ফলে দুই ম্যাচ শেষে ৪ পয়েন্ট নিয়ে টেবিল টপার স্পেন। আর সমান সংখ্যক ম্যাচ থেকে এক পয়েন্ট নিয়ে সবার নিচে জার্মানি।


কাতার বিশ্বকাপ   স্পেন   জার্মানি   আল বাইত স্টেডিয়াম  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড গ্রাউন্ড

মোরাতার গোলে প্রথম সাফল্য স্পেনের

প্রকাশ: ০২:২৭ এএম, ২৮ নভেম্বর, ২০২২


Thumbnail

দ্বিতীয়ার্ধেও গোলের আশায় মরিয়া হয়ে খেলতে থাকে দুই দল। তবে গোছানো আক্রমণ করতে পারছিলো কোন দলই। ম্যাচের ৫৪ মিনিটে ফেরান তোরেসকে উঠিয়ে আলভারো মোরাতাকে মাঠে নামান স্প্যানিশ কোচ এনরিকে। ৫৬ মিনিটে কিমিচের নেয়া শট কর্নারের বিনিময়ে রুখে দেন উনাই সিমোন।

৬২ মিনিটে স্পেনকে এগিয়ে দেন মোরাতা। বদলি হিসেবে নামার ৮ মিনিটের মধ্যে গোল করে স্প্যানিশদের স্বস্তি এনে দেন এই ফরোয়ার্ড। বাম পাশ থেকে জর্দি আলবার দারুণ এক পাস থেকে নয়্যারের মাথার উপর দিয়ে বল জালে জড়ান তিনি। চলতি বিশ্বকাপে এটি মোরাতার দ্বিতীয় গোল। ৬৫ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করার সুযোগ ছিলো অ্যাসেনসিও'র সামনে। তবে তার নেয়া শট চলে যায় পোষ্টের অনেক উপর দিয়ে চলে যায়। পরের মিনিটে একাদশে জোড়া পরিবর্তন আনে স্পেন। অ্যাসেনসিও-গাভির বদলি হিসেবে মাঠে নামেন কোকে এবং নিকো উইলিয়ামস।


কাতার বিশ্বকাপ   স্পেন   জার্মানি   আল বাইত স্টেডিয়াম  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড গ্রাউন্ড

সমতায় শেষ স্পেন-জার্মানির প্রথমার্ধ্ব

প্রকাশ: ০১:৪৮ এএম, ২৮ নভেম্বর, ২০২২


Thumbnail

কিক অফের পর থেকে দুই দলের লড়াই শুরু হয় বলের দখল নিয়ে। আক্রমণাত্নক ফুটবল খেলে শুরু থেকেই চাপ সৃষ্টির চেষ্টা চালায়। ম্যাচের ৭ মিনিটেই এগিয়ে যেতে পারতো স্পেন। দানি ওলমোর নেয়া শট হাতে লাগিয়ে দেন নয়্যার। তার হাতে লাগার পর উপরের পোষ্টে লাগ বল। সেখানেই শেষ হয়নি পরে সাইয পোষ্টে লেগে বল বাইরে চলে গেলে সে যাত্রায় বেঁচে যায় জার্মানি।

১৪ মিনিটে সুযোগ পেয়েছিলো জার্মানিও। তবে অফসাইডে ছিলেন গোরেৎস্কা। ২২ মিনিটে জর্দি আলবার শট বাম পোষ্ট ঘেঁষে বাইরে চলে যায়। ২৫ মিনিটে উনাই সিমনের ভুল পাস থেকে বল পোন জিনাব্রি। তার শটটিও পোষ্টের খানিক বাইরে দিয়ে চলে গেলে এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ হারায় জার্মানি।

আক্রমণ-প্রতি আক্রমণে চলতে থাকে খেলা। ২৫ মিনিটে সুযোগ পায় জিনাব্রি। দুই মিনিট পর ভালো সম্ভাবনা তৈরি করেছিলো স্পেন। কাজে লাগাতে ব্যর্থ হন ফেরান তোরেস। ৩৬ মিনিটে আরো একটি সহজ সুযোগ নষ্ট করেন তোরেস। ডি-বক্সে ফাঁকা জায়গায় বল পেয়েও পোষ্টের উপর দিয়ে পাঠান।

৪০ মিনিটে কর্ণার থেকে হেডে গোল করে জার্মানিকে এগিয়ে দেন রুডিগার। তবে অফসাইডের ফাঁদে পড়ায় তা বাতিল ঘোষণা করেন ডাচ রেফারি ডেসমন্ড। লিড নিতে ব্যর্থ হয় জার্মানি। 

নির্ধারিত সময়ে কোন গোল না হলে সমতায় শেষ হয় দুই দলের প্রথমার্ধ্ব।


কাতার বিশ্বকাপ   স্পেন   জার্মানি   আল বাইত স্টেডিয়াম  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড গ্রাউন্ড

হাই ভোল্টেজ ম্যাচে মুখোমুখি স্পেন-জার্মানি

প্রকাশ: ০১:০৪ এএম, ২৮ নভেম্বর, ২০২২


Thumbnail

বিশ্বকাপের হাই ভোল্টেজ ম্যাচে মাঠে নেমেছে স্পেন ও জার্মানি। আল বাইত স্টেডিয়ামে 'ই' গ্রুপের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে জয় তুলে নিয়ে পরের রাউন্ডের পথটা পরিষ্কার করে রাখতে চায় স্পেন। প্রথম ম্যাচে কোস্টা রিকাকে ৭-০ গোলে হারিয়ে নিজেদের কাজটা সেরে রেখেছে পেদ্রি-গাভিরা। আর জাপানের কাছে ২-১ গোলে হেরে ব্যাকফুটে জার্মানি। বিশ্বকাপে টিকে থাকতে এ ম্যাচে জয় ছাড়া বিকল্প নেই জার্মানির।

দুই দলের একাদশ ও ফর্মেশন:

স্পেন একাদশ:

উনাই সিমন, রদ্রি, জর্দি আলবা, দানি কারভাহাল, এমেরিক লাপোর্ত, সার্জিও বুসকেতস, গাভি, পেদ্রি, মার্কো অ্যাসেনসিও, ফেরান তোরেস, দানি ওলমো

ফর্মেশন: ৪-১-২-৩

কোচ: লুইস এনরিকে।

জার্মান একাদশ:

ম্যানুয়েল নয়্যার, অ্যান্তোনিও রুডিগার, ডেভিড রাউম, থিলো খেরার, নিকলাস সুলে, জশুয়া কিমিচ, লিওন গোরেৎস্কা, সার্জ জিনাব্রি, জামাল মুসিয়ালা, ইকায় গুন্ডোগান, থমাস মুলার।

ফর্মেশন: ৪-২-৩-১

কোচ: হান্সি ফ্লিক


কাতার বিশ্বকাপ   স্পেন   জার্মানি   আল বাইত স্টেডিয়াম  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন