ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

চীনের মহড়া: তাইওয়ানগামী ফ্লাইট বাতিল ও রুট পরিবর্তন

প্রকাশ: ০৫:৪৯ পিএম, ০৫ অগাস্ট, ২০২২


Thumbnail চীনের মহড়া: বিভিন্ন এয়ারলাইনসের তাইওয়ানগামী ফ্লাইট বাতিল ও রুট পরিবর্তন

তাইওয়ানের চারপাশে চীনের চলমান সামরিক মহড়ার কারণে বেশ কয়েকটি উড়োজাহাজ সংস্থা তাইপগামী ফ্লাইট বাতিল করেছে। পাশাপাশি ওই অঞ্চল দিয়ে চলাচলকারী অন্যান্য দেশগামী ফ্লাইটের রুট পরিবর্তন করা হয়েছে। চীনের সামরিক মহড়ার কারণে ওই অঞ্চলের আকাশসীমা বেসামরিক বিমান চলাচলের জন্য বন্ধ করে দেওয়ায় এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। খবর রয়টার্সের।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির তাইপে সফরের প্রতিক্রিয়ায় চীন গতকাল বৃহস্পতিবার এই সামরিক মহড়া শুরু করে। আগামী রোববার স্থানীয় সময় দুপুর পর্যন্ত দ্বীপটিকে ঘিরে ছয়টি অঞ্চলে এ মহড়া চলবে। এতে দৃশ্যত অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছে তাইওয়ান।

এ মহড়ায় চীনের কয়েক ডজন যুদ্ধবিমান অংশ নিয়েছে এবং ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়েছে। মহড়ার আকাশসীমা তুলনামূলক ছোট। কিন্তু ১৯৯৬ সালে ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়ার পর এ অঞ্চলে চীনের সবচেয়ে বৃহত্তম মহড়ার কারণে উড়োজাহাজ চলাচলে এই বিঘ্ন ঘটছে। এতে দক্ষিণ-পূর্ব ও উত্তর-পূর্ব এশিয়ার মধ্যে ভ্রমণ বাধাগ্রস্ত হচ্ছে।

বড় ধরনের সামরিক মহড়া চলাকালে সাময়িকভাবে আকাশসীমা বন্ধ করে দেওয়া এবং উড়োজাহাজের রুট পরিবর্তন সারা বিশ্বে নিয়মিত ঘটে থাকে। তবে এ পরিস্থিতি অস্বাভাবিক। কারণ, চীনের এই মহড়া তাইওয়ানের দাবিকৃত ১২ নটিক্যাল মাইল (২২ কিলোমিটার) আঞ্চলিক জলসীমাকে দুই ভাগে ভাগ করে ফেলেছে। বিষয়টিকে তাইওয়ানের কর্মকর্তারা আন্তর্জাতিক নীতিমালাকে চ্যালেঞ্জ এবং দেশটির সমুদ্র ও আকাশসীমা অবরোধ করার শামিল বলে মন্তব্য করেছেন।

কোরিয়ান এয়ারলাইনস ও সিঙ্গাপুর এয়ারলাইনস মহড়ার কারণে আজ শুক্রবার তাইপে যাওয়া-আসার ফ্লাইট বাতিলের কথা জানিয়েছে। একই সঙ্গে কোরিয়ান এয়ারলাইনস শনিবারের ফ্লাইটও বাতিল করতে যাচ্ছে আর বিলম্বিত করতে যাচ্ছে রোববারের ফ্লাইটগুলোও।

হংকংয়ের ক্যাথে প্যাসিফিক এয়ারওয়েজ ও ফিলিপাইন এয়ারলাইনস জানিয়েছে, তাদের ফ্লাইটগুলো তাইওয়ানের চারপাশে নির্ধারিত আকাশসীমা এড়িয়ে চলছে। এতে কিছু ফ্লাইটের গন্তব্যে পৌঁছাতে বেশি সময় লাগবে। ভিয়েতনামের বেসামরিক বিমান পরিবহন সংস্থা ওই আকাশসীমা এড়িয়ে চলতে দেশটির উড়োজাহাজ সংস্থাগুলোকে সতর্ক করেছে।

তবে জাপানের এএনএ হোল্ডিংস ইনক (৯২০২.টি) এবং জাপান এয়ারলাইনস কো. লিমিটেড (৯২০১.টি)–এর মুখপাত্র জানিয়েছেন, তাইপে স্বাভাবিক সময়ের মতো ফ্লাইট পরিচালনা করছে। তবে তারা যেসব এলাকায় মহড়া চলছে, সেসব এলাকার আকাশসীমা এড়িয়ে যাচ্ছে। হংকং ও দক্ষিণপূর্ব এশিয়াগামী ফ্লাইটের ক্ষেত্রেও একইভাবে চলাচল করছে।

ফ্লাইট ট্র্যাকিং পরিষেবা ফ্লাইটরাডার২৪-এ দেখা যায়, তাইওয়ানের বিমান সংস্থা চায়না এয়ারলাইনস ও ইভিএ এয়ারলাইনস শুক্রবার সকাল নাগাদ দ্বীপটিতে চলাচল অব্যাহত রেখেছিল। কার্গো পরিবহন ফেডএক্স করপ ও ইউনাইটেড পার্সেল সার্ভিস ফ্লাইট চালু রাখলেও মহড়ার অঞ্চল এড়িয়ে যাচ্ছে।

শুক্রবার সকালে তাইপের পথে এমিরেটস, ইউনাইটেড এয়ারলাইনস হোল্ডিং ইনক ও টার্কিশ এয়ারলাইনসেরও ফ্লাইট চলাচল করেছে বলেও ফ্লাইটরাডার২৪-এ দেখা যায়।


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

বিশ্ব বাজারে জ্বালানি তেলের দাম আবারও কমেছে

প্রকাশ: ০২:১৭ পিএম, ১৫ অগাস্ট, ২০২২


Thumbnail বিশ্ব বাজারে জ্বালানি তেলের দাম আবারও কমেছে

বিশ্বের বৃহত্তম অপরিশোধিত তেলের আমদানিকারক চীনের অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডের ধীরগতি এবং চাহিদা কমে যাওয়ায় এর প্রভাব পড়েছে বৈশ্বিক জ্বালানি তেলের বাজারে। চীনের চাহিদা কমে যাওয়ায় সোমবার বিশ্ব বাজারে জ্বালানি তেলের দাম আবারও কমেছে।

ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স বলছে, সোমবার দ্বিতীয় সেশনে বিশ্ব বাজারে দুই দফায় কমেছে তেলের দাম। অন্যদিকে, বিশ্বের শীর্ষ তেল রপ্তানিকারক কোম্পানি সৌদি আরামকোর প্রধান বলেছেন, তেলের উৎপাদন বাড়াতে তার কোম্পানি প্রস্তুত আছে।

বিশ্ব বাজারে ব্রেন্ট ক্রুড ফিউচারের দাম প্রতি ব্যারেলে (এক ব্যারেল=১৫৯ লিটার) ৮৯ সেন্ট বা শূন্য দশমিক ৯ শতাংশ কমে ৯৭.২৬ ডলারে নেমেছে। এছাড়া সোমবার প্রথম সেশনে যুক্তরাষ্ট্রের বেঞ্চমার্ক ওয়েস্ট টেক্সাস ইন্টারমিডিয়েট (ডব্লিউটিআই) ক্রুডের প্রতি ব্যারেলের দাম ৮২ সেন্ট কমে ৯১.২৭ ডলারে হয়েছে। এর আগে, প্রথম সেশনে এই তেলের দাম ২ দশমিক ৪ শতাংশ কমে যায়।

গত ফেব্রুয়ারির শেষ দিকে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ বাঁধার পর থেকেই মন্দাভাব শুরু হয়েছে জ্বালানি তেলের বাজারে। জ্বালানি তেলের আন্তর্জাতিক বাজার পর্যবেক্ষণকারী বিভিন্ন সংস্থার তথ্য অনুযায়ী, শতাংশ হিসেবে গত ৬ মাসে  বিশ্ব বাজারে ব্রেন্ট ক্রুড তেলের দাম কমেছে ১৩ দশমিক ৭ শতাংশ ও ডব্লিউটিআইয়ের দাম কমেছে ৯ দশমিক ৭ শতাংশ।

চীনের সরকারি তথ্য-উপাত্তে দেখা গেছে, বিশ্বের সর্ববৃহৎ ক্রুড তেলের আমদানিকারক চীনে গত জুন মাসে উৎপাদন বৃদ্ধি পায়। করোনাভাইরাস মহামারির কারণে নতুন করে লকডাউন ঘোষণা করায় জুলাইয়ে তা কমে যায়। চীনের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির অপ্রত্যাশিত ধীরগতির কারণে জুলাই মাসে দেশটিতে দৈনিক তেল পরিশোধনের পরিমাণ ১ কোটি ২৫ লাখ ৩০ হাজার ব্যারেলে নেমে গেছে। যা ২০২০ সালের মার্চের পর দেশটিতে দৈনিক সর্বনিম্ন তেল পরিশোধন।

বিশ্বের শীর্ষ ক্রেডিট রেটিং সংস্থা মুডিস ইনভেস্টরস সার্ভিসের অর্থনীতিবিদ হেরন লিন বলেছেন, চীনের সরকারি তথ্য-উপাত্তে তেলের রেকর্ড দামের কারণে অভ্যন্তরীণ সরবরাহ এবং ভোক্তাদের চাহিদা বাধাগ্রস্ত হচ্ছে বলে ইঙ্গিত মিলেছে।

রোববার সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে সৌদি আরামকোর প্রধান নির্বাহী আমিন নাসের বলেছেন, সৌদি সরকারের কাছ থেকে চাহিদা পেলে সৌদি আরামকো দৈনিক সর্বোচ্চ ১ কোটি ২০ লাখ ব্যারেল অপরিশোধিত তেল উৎপাদনের জন্য প্রস্তুত আছে।

তিনি বলেন, উৎপাদন বাড়ানোর জন্য সরকার অথবা জ্বালানি মন্ত্রণালয়ের কাছ থেকে চাহিদা অথবা অনুরোধ পেলে যে কোনও সময় দিনে এক কোটি ২০ লাখ ব্যারেল তেল উৎপাদনের জন্য আমরা প্রস্তুত আছি। চীন করোনাভাইরাস বিধি-নিষেধ শিথিল এবং বিমান পরিবহন পুরোদমে শুরু করায় জ্বালানির চাহিদা বৃদ্ধি পেতে পারে বলে জানিয়েছেন তিনি।

তেলের একটি পাইপলাইন ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় মেক্সিকো উপসাগরের কয়েকটি অফশোরে উৎপাদন ব্যাহত হয়। যে কারণে গত সপ্তাহে বিশ্ব বাজারে তেলের দাম ৩ শতাংশের বেশি বৃদ্ধি পায়।

যুক্তরাষ্ট্রের লুইজিয়ানার একজন কর্মকর্তা বলেছেন, মেক্সিকো উপসাগরের ক্ষতিগ্রস্ত পাইপলাইন শুক্রবার রাতের দিকে মেরামত করায় কিছু উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান তাদের স্থগিত হয়ে যাওয়া উৎপাদন পুনরায় শুরু করেছে।

চলতি শীতে রাশিয়ার অপরিশোধিত তেল এবং পরিশোধিত জ্বালানি সরবরাহে ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) নিষেধাজ্ঞার কারণে বিশ্বব্যাপী তেলের বাজার অস্থিতিশীল হয়ে উঠেছে। তবে ২০১৫ সালের ঐতিহাসিক পারমাণবিক চুক্তি পুনরুজ্জীবিত করতে ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রস্তাব যদি ইরান এবং যুক্তরাষ্ট্র গ্রহণ করে সেক্ষেত্রে তেলের সরবরাহ বাড়তে পারে। বিশ্লেষকরা বলছেন, চুক্তিটি পুনরুজ্জীবিত হলে ইরানের তেল রপ্তানির ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার হয়ে যাবে।

 

সূত্র: রয়টার্স।


জ্বালানি তেল   বিশ্ব বাজার  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

পরমাণু বিদ্যু কেন্দ্র থেকে রাশিয়াকে সেনা প্রত্যাহারের আহ্বান

প্রকাশ: ০২:১১ পিএম, ১৫ অগাস্ট, ২০২২


Thumbnail পরমাণু বিদ্যু কেন্দ্র থেকে রাশিয়াকে সেনা প্রত্যাহারের আহ্বান

ইউরোপের সবচেয়ে বড় পরমাণু বিদ্যুৎ কেন্দ্রে রাশিয়াকে সেনা প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়নসহ ৪২ দেশ। রাশিয়ার দখল করা ইউক্রেনের জাপোরিঝঝিয়া পরমাণু বিদ্যুৎ কেন্দ্রে বিপর্যয়ের আশঙ্কা ক্রমেই বাড়ছে।

বিপর্যয় এড়াতে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের দেশ ইউক্রেনে ‘বিশেষ সামরিক অভিযান শুরু করে রাশিয়া।  অভিযানের শুরুর দিকেই ইউরোপের সবচেয়ে বড় এই পরমাণু বিদ্যুৎ কেন্দ্রটি দখল করে নেয় রাশিয়া। এই যুদ্ধে ব্যাপক ধ্বংসলীলার পাশাপাশি সাধারণ মানুষের মৃত্যুর অনেক ঘটনাও ঘটছে। কিন্তু ইউরোপের সবচেয়ে বড় এই পরমাণু কেন্দ্রে যদি কোনও বিপর্যয় ঘটে, তার সুদূরপ্রসারী প্রভাব মারাত্মক হতে পারে বলে আশঙ্কা বাড়ছেই। রবিবারও জাপোরিঝঝিয়া পরমাণু বিদ্যুৎ কেন্দ্রের কাছে এনেরহোডার শহরে জোরালো সংঘর্ষ ঘটেছে।

রবিবারের সংঘর্ষের জন্য রাশিয়া ও ইউক্রেন পরস্পরকে দায়ী করেছে। রাশিয়ার সূত্র অনুযায়ী ‘ইউক্রেনের জাতীয়তাবাদীরা ওই এলাকার উপর হামলা চালিয়েছে।

অন্যদিকে দিমিত্রো অর্লভ শহরের ইউক্রেনীয় মেয়র রাশিয়ার বিরুদ্ধে ‘হত্যাকারী প্ররোচনার অভিযোগ করেছেন। রাশিয়া পরমাণু কেন্দ্রটিকে ‘দুর্গ' হিসেবে ব্যবহার করে হামলা চালাচ্ছে বলে ইউক্রেন সমালোচনা করছে।

এই কেন্দ্রের নিরাপত্তার স্বার্থে ৪২টি দেশ অবিলম্বে সেখান থেকে রাশিয়ার সেনা প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে। ইউরোপীয় ইউনিয়ন, ব্রিটেন, নরওয়ে, জাপান, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড ও অন্যান্য কয়েকটি দেশ এক যৌথ বিবৃতিতে পরমাণু বিদ্যুৎ কেন্দ্র ও আশেপাশের এলাকা থেকে রুশ সৈন্য ও অন্যান্য অননুমোদিত ব্যক্তিদের অপসারণ দাবি করেছে।

গোটা ইউক্রেন থেকেই রুশ সৈন্য সরানোর দাবিও করেছে এই দেশগুলো। সেক্ষেত্রে কেন্দ্রের পরিচালক সংস্থা ও ইউক্রেনীয় কর্তৃপক্ষ পরমাণু কেন্দ্রটির নিয়ন্ত্রণ আবার গ্রহণ করে দায়িত্ব পালন করতে পারে। তাছাড়া আন্তর্জাতিক পরমাণু শক্তি সংস্থা আইএইএ সেখানে পরিদর্শন করে নিরাপত্তা ব্যবস্থার উপর নিয়মিত নজর রাখতে পারবে।

 সূত্র: ডয়েচে ভেলে, রিপাবলিক ওয়ার্ল্ড, ইউক্রেনস্কা প্রাবদা, কিয়েভপোস্ট


রাশিয়া   ইউক্রেন   পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

৬ বছর পর ইরানে রাষ্ট্রদূত নিয়োগ দিলো কুয়েত

প্রকাশ: ১২:৫৮ পিএম, ১৫ অগাস্ট, ২০২২


Thumbnail ৬ বছর পর ইরানে রাষ্ট্রদূত নিয়োগ দিলো কুয়েত

৬ বছর পর ইরানে রাষ্ট্রদূত নিয়োগ দিয়েছে কুয়েত। উভয় দেশের পক্ষ থেকেই এই তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে। ভয়েস অব আমেরিকার খবরে বলা হয়েছ, তেহরান থেকে রাষ্ট্রদূত প্রত্যাহারের ৬ বছর পর কুয়েত রাষ্ট্রদূত নিয়োগ দিল। ২০১৬ সালে সৌদি আরবের সঙ্গে সংহতি রেখে রাষ্ট্রদূত প্রত্যাহার করেছিল কুয়েত।

ইরানে নিয়োগ পাওয়া কুয়েতের রাষ্ট্রদূত বাদের আব্দুল্লাহ আল মুনাইখ। ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হুসেইন আমিরআব্দুল্লাহিয়ানের কাছে শনিবার (১৩ আগস্ট) তার পরিচয়পত্র তুলে দেওয়া হয়। কুয়েতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ও এই তথ্য নিশ্চিত করেছে।

৬ বছর সম্পর্ক স্থগিত থাকার পর সুন্নি মুসলিমদের ‘শক্তিঘর’ হিসেবে পরিচিত সৌদি আরব সম্প্রতি ইরানের সঙ্গে সম্পর্ক পুনর্স্থাপনের উদ্যোগ নিয়েছে। তার অংশ হিসেবে তেহরানে রাষ্ট্রদূত নিয়োগ দিল কুয়েত। 

সূত্র: ভয়েস অব আমেরিকা


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

রাশিয়ার স্বর্ণের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিতে পারে ইউরোপীয় ইউনিয়ন

প্রকাশ: ১১:৫২ এএম, ১৫ অগাস্ট, ২০২২


Thumbnail রাশিয়ার স্বর্ণের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিতে পারে ইউরোপীয় ইউনিয়ন

এবার রাশিয়ার স্বর্ণের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার কথা ভাবছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন।ইউক্রেনে অভিযান শুরুর পর রাশিয়ার ওপর বিভিন্ন নিষেধাজ্ঞা দেয় যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্রদেশগুলো।এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে আল জাজিরা।

রাশিয়ার বিষয়ে গৃহীত অন্যান্য পদক্ষেপও আরও কঠোর করা হচ্ছে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে। এর আগে গত জুনে রাশিয়া থেকে তেল আমদানির ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল ইইউ।

যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও জি-৭ জোটের কিছু সদস্যদেশসহ কয়েকটি প্রভাবশালী দেশ রাশিয়া থেকে সোনা আমদানি নিষেধাজ্ঞা প্রস্তাবের খুঁটিনাটি নিয়ে আলোচনা করছে। চলতি সপ্তাহেই এ পরিকল্পনা আনুষ্ঠানিকভাবে অনুমোদিত হবে বলে আশা করা হচ্ছে। গত মাসে জি-৭ শীর্ষ সম্মেলনে প্রস্তাবটি প্রথম উত্থাপিত হয়েছিল। এই নিষেধাজ্ঞা প্রস্তাবের ওপর ভোটাভুটির আগে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, কানাডা ও জাপান তা যাচাই বাছাই করে দেখছে।

উল্লেখ্য, যুক্তরাজ্যে সোনা ও রুপার বারের বাজারের প্রতিনিধিত্বকারী বাণিজ্য সমিতি লন্ডন বুলিয়ন মার্কেট অ্যাসোসিয়েশন (এলবিএমএ) এক বিবৃতিতে আল-জাজিরাকে জানায়, ‘রাশিয়ার পরিশোধিত সোনার বারের গায়ে ছাপ ও তারিখ থাকে, তাই সহজেই এগুলো শনাক্ত করা সম্ভব। ২৪ জুন থেকে আরোপিত নিষেধাজ্ঞা রাশিয়ার নতুন সোনার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য, তবে এ তারিখের আগে পরিশোধিত এবং অন্য দেশে রক্ষিত রাশিয়ার সোনার ওপর এটি প্রযোজ্য নয়।’



রাশিয়া   ইউরোপীয় ইউনিয়ন  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

ভারতকে উন্নত দেশে পরিনত করা হবে: স্বাধীনতা দিবসে মোদি

প্রকাশ: ১১:৩৩ এএম, ১৫ অগাস্ট, ২০২২


Thumbnail ভারতকে উন্নত দেশে পরিনত করা হবে: স্বাধীনতা দিবসে মোদি

ভারতের স্বাধীনতা দিবস আজ। স্বাধীনতার ৭৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে দেশটিতে পালিত হচ্ছে ‘আজাদি কা অমৃত মহোৎসব’। এ উপলক্ষে সোমবার (১৫ আগস্ট) সকালে জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

সেখানে ভারতকে উন্নত দেশে পরিণত করাসহ পাঁচ দফা পরিকল্পনা ঘোষণা করেছেন মোদি। সোমবার এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে ভারতের কেন্দ্রীয় ও রাজ্য সরকারের পক্ষ তেকে দেশজুড়ে নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। এছাড়া দেশটির তিন বাহিনী- ভারতীয় সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী ও বিমান বাহিনীর পক্ষ থেকেও একাধিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

সোমবার সকালে নয়াদিল্লিতে অবস্থিত লালকেল্লা থেকে ভারতের জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এরপরই সেখানে জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেন তিনি। মূলত স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে সেজে ওঠা লালকেল্লা থেকে উৎসবের নেতৃত্ব দিচ্ছেন মোদি।

জাতির উদ্দেশে ভাষণে মোদি বলেন, ‘আমরা বাপু (মহাত্মা গান্ধী), নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু, বাবাসাহেব আম্বেদকর, বীর সাভারকরের প্রতি কৃতজ্ঞ যারা দেশের স্বাধীনতার জন্য জীবন দিয়েছেন।



ভারত   মোদি  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন